নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
১৭ মে ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন

শরীয়তপুরের জাজিরায় মেম্বার প্রার্থী কে তালাবদ্ধ উদ্ধার করলো পুলিশ!

শরীয়তপুর প্রতিনিধি
বুধবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২২, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

আসন্ন ৩১ জানুয়ারি ষষ্ঠ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শরীয়তপুর জাজিরা উপজেলার সেনের চর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী মোঃ আবুল হোসেন হাওলাদারকে তালাবদ্ধ করে রেখেছিলো, প্রতিদন্দী মেম্বার প্রার্থী মালেক মাদবর ও তার সহযোগিরা।

ত্রিপল ৯ নাম্বারে ফোন করলে ঘটনাস্থল থেকে মোঃ আবুল হোসেন হাওলাদারকে উদ্ধার করে জাজিরা থানা পুলিশ।

এই ঘটনায় মেম্বার প্রার্থী আবুল হোসেন হাওলাদার ১৮ জানুয়ারি মঙ্গলবার জাজিরা উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ মঞ্জুর হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জাজিরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছন বলে সাংবাদিকদেরকে জনিয়েছেন। মেম্বার প্রার্থী মোঃআবুল হোসেন হাওলাদার সাংবাদিকদের আর ও বলেন যে, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সেনের চর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে জনগণের মনোনীতো আমি এক জন মেম্বার পদপ্রার্থী। আমার নির্বাচনী প্রতিক (টিউবওয়েল)

গত ১৬ জানুয়ারি ঢাকা থেকে আমার নির্বাচনী পোষ্টাল নিয়ে নিজ বাড়িতে আসলে, আমাকে নির্বাচন করতে দিবেনা এই বলে আমার প্রতিদন্ধী  মেম্বার প্রার্থী মালেক মাদবর ও তার সহযোগিরা,লিটন মাদবরকে দিয়ে আমাকে তালাবদ্ধ করে রাখে, আমি ত্রিপল ৯নাম্বারে ফোন করলে জাজিরা থানার সাব-ইন্সপেক্টর আল আমিন সহ-পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে আমাকে উদ্ধার করে। আমার প্রতিদন্ধী মেম্বার প্রার্থী মালেক মাদবর, আমার জন প্রিয়তা দেখে আমাকে নির্বাচন থেকে সরানোর জন্য আমাকেসহ-আমার কর্মীদেরকে নানা ভয় ভীতি দেখাচ্ছে ।নির্বাচন পরিচালনা কারি প্রশাসনের কাছে আমার দাবি আগামী ৩১ জানুয়ারি সেনের চর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে জনগণকে একটি অবাধ-সুষ্ঠ নির্বাচন উপহার দিবেন।

এব্যাপারে জাজিরা থানার সাব-ইন্সপেক্টর আল আমিন জানান, ১৬ জানুয়ারি রাত ৮টার দিকে ঘটনা স্থানে গিয়ে মেম্বার প্রর্থী মোঃ আবুল হোসেন হাওলাদারকে তালাবদ্ধ অবস্থায় দেখতে পাই তালা ভেঙ্গে তাকে আমরা উদ্ধার করি। অভিযুক্ত মেম্বার প্রার্থী আব্দুল মালেক মাদবর বলেন পারিবারিক বিষয় দন্ধের কারণে লিটন মাদবর আবুল হোসেনকে তালাবদ্ধ করে রেখেছিলো।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


আরো সংবাদ