বছরের ১ মাস চলে যাচ্ছে সিলেট বই ছাড়া চলছে ক্লাস

আবুল কাশেম রুমন, সিলেট
মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩, ৩:৫৬ অপরাহ্ন

চলতি বছরের ১ মাস চলে যাচ্ছে তারপর সিলেট জুড়ে বই ছাড়া চলছে স্কুলের ক্লাস। সিলেট বিভাগে মাধ্যমিকে এখনো শতভাগ বই বিতরণ সম্ভব হয়নি। সিলেট বিভাগে ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম  শ্রেণী পর্যন্ত মাধ্যমিক স্কুল (ইংরেজী ও বাংলা ভার্সন), দাখিল মাদ্রাসা, কারিগরি বোর্ড ও ইবতেদ্বায়ি ১ম থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত ১২ লক্ষাধিক শিক্ষার্থীর জন্য বিনামূল্যে বিতরণের জন্য ১ কোটি ৫৮ লক্ষাধিক কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে। এর বিপরীতে এখন পর্যন্ত (১৭ জানুয়ারী) সরবরাহ হয়েছে প্রায় ১ কোটি ২৭ লাখ ২০ হাজার কপি বই। যা চাহিদার ৮০ শতাংশ বলে জানিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অফিস। তাদের হিসেবে এখনো বাকী ৩১ লাখ ৮০ হাজার কপি বই।

তবে বাস্তবে মাধ্যমিকে বই সরবরাহ ৭০ শতাংশের বেশী হবে না বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র। ফলে বই ছাড়াই শ্রেণী কার্যক্রম পরিচালনা করতে হচ্ছে অনেক শিক্ষার্থীকে।

এদিকে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক  বোর্ডের (এনসিটিবি) দাবী এখনো ২ কোটি বই ছাপানো বাকী রয়েছে। তবে এনসিটিবি’র এই তথ্যকে ভুয়া বলে দাবী করেছে মুদ্রণ শিল্প সমিতি। তারা জানিয়েছে এখনো ৮  কোটি বই বাকী রয়েছে।

সিলেট বিভাগীয় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) অফিস সূত্র জানিয়েছে, প্রতিদিনই বিভিন্ন উপজেলায় বই আসছে। চলতি মাসের মধ্যে শতভাগ বই স্কুল-মাদ্রাসায় পৌঁছে যাবে। ইতোমধ্যে মাধ্যমিক স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষার ৮০ ভাগের উপর বই শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছানো হয়ে গেছে। পুরাতন কারিকুলামে প্রায় শতভাগ বই চলে এসেছে। নতুন কারিকুলামের ক্ষেত্রে বই আসতে দেরি হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মাধ্যমিকের ক্ষেত্রে সিলেট বিভাগের একমাত্র সিলেট জেলায় ৯০ ভাগের উপরে বই  পৌঁছানো হলেও অন্যান্য জেলায় ৭৫ থেকে ৮০ ভাগ বই পৌঁছেছে। কোন কোন জেলায় বই প্রাপ্তির সংখ্যা ৬০ ভাগের মধ্যেও রয়ে গেছে।

সিলেট জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, সিলেট জেলায় মাধ্যমিক স্কুল, দাখিল মাদ্রাসা, ইবতেদ্বায়ি (১ম  থেকে ৫ম) ও কারিগরি শিক্ষা মিলে ৫৯ লাখ ৫৮ হাজার ১৪৪ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারী) পর্যন্ত ৫৪ লাখ ২৫ হাজার ৭৫৩ কপি অর্থাৎ ৯১ শতাংশ বই পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে।

এক্ষেত্রে জেলায় ইবতেদ্বায়ি ১ম থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত শতভাগ বই বিতরণ করা হয়েছে। শুধু মাধ্যমিক স্কুল নয় সরকারি প্রাইমরি স্কুল ও কিন্ডার গার্ডেন এখন বই সংকট হয়েছে বলে জানান স্কুল কর্তৃপক্ষ।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


আরো সংবাদ
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com