জাওয়াহিরি হত্যা ও সহিংসতার কাজে জড়িত ছিলেন : বাইডেন

অন্যদৃষ্টি অনলাইন
মঙ্গলবার, ২ আগস্ট, ২০২২, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন

জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা আয়মান আল জাওয়াহিরিকে হত্যার ঘোষণা দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, ‘আমেরিকান নাগরিকদের বিরুদ্ধে হত্যা ও সহিংসতার কাজে দীর্ঘ সময় ধরে জড়িত ছিলেন আয়মান আল-জাওয়াহিরি। এখন ন্যায়বিচার করা হয়েছে এবং এই সন্ত্রাসী নেতা আর নেই।’

প্রেসিডেন্ট বাইডেন জানান, কয়েক মাস ধরে পরিকল্পনার পর ৭১ বছর বয়সী আল-কায়েদা নেতার ওপর ‘নির্ভুল হামলা’ চালানোর চূড়ান্ত অনুমোদন দেন তিনি।

আল-কায়েদার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেন এবং আল-জাওয়াহিরি এক সঙ্গে আমেরিকার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছিলেন এবং ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার আয়োজন করেন বলে অনেকে অভিহিত করেন।

মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ গত রবিবার যখন ড্রোনের মাধ্যমে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে তখন জাওয়াহিরি একটি সেফ হাউসের বারান্দায় অবস্থান করছিলেন।

তারা আরও বলেছেন, হামলার সময় পরিবারের অন্য সদস্যরা সেখানে (সেফ হাউসে) উপস্থিত ছিলেন। তবে ওই হামলায় তারা অক্ষত রয়েছেন এবং শুধুমাত্র জাওয়াহিরিকেই হত্যা করা হয়েছে।

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ড্রোন হামলায় জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার প্রধান আয়মান আল-জাওয়াহিরি নিহত হয়েছেন। জাওয়াহিরি নিহত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

রবিবার (৩১ জুলাই) ড্রোনের মাধ্যমে আফগান রাজধানী কাবুলে ওই হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ। মঙ্গলবার (২ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

আল-জাওয়াহিরি মিশরের ইসলামি জিহাদ নামক জঙ্গি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। ওসামা বিন লাদেন ২০১১ সালের মে মাসে মার্কিন বাহিনীর হাতে নিহত হবার পর আল-জাওয়াহিরি আল-কায়েদার নেতৃত্ব গ্রহণ করেন।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


আরো সংবাদ
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com