চোরের সন্ধান করছেন উসাইন

ক্রীড়া ডেস্ক
সোমবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২৩, ১২:৩০ অপরাহ্ন

বিশ্ব কাঁপানো জামাইকান অ্যাথলেট উসাইন বোল্ট। অ্যাথলেটিকস ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে টানা তিন অলিম্পিক গেমসে স্বর্ণপদক জয় করেছেন ১০০ মিটার স্প্রিন্টে। বিশ্বজয় করা এই তারকা চোরের সন্ধান করছেন। তার টাকা নিয়ে গেছে চোরে। একটি সংস্থায় বিনিয়োগ করে তার অ্যাকাউন্ট থেকে কয়েক কোটি টাকা উধাও। তোলপাড় হয়ে গেছে।

উসাইন বোল্টের টাকা কোথায় গেল তা সেটা খুঁজতে শুরু করেছে জামাইকার ফিন্যানসিয়াল সার্ভিস কমিশন। জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরেই সংস্থার সঙ্গে যুক্ত উসাইন বোল্ট। এতদিন সবকিছু ঠিকঠাক থাকলেও আচমকাই সমস্যা দেখা গেল টাকা উধাও হওয়ার পর। ফিন্যানসিয়াল সার্ভিস কমিশনের সঙ্গে কয়েক দফায় আলোচনা করেছেন। কিন্তু টাকার হদিস না পেয়ে কমিশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

খেলা ছেড়ে অবসরে যাওয়ার পর উসাইন বোল্ট ব্যবসায় পা রেখে ছিলেন। বিনিয়োগ করেছিলেন সেখানে। স্টক অ্যান্ড সিকিউরিটি লিমিটেড নামের একটি সংস্থানের সঙ্গে উসাইন বোল্টের ব্যাবসায়িক যোগাযোগ দীর্ঘদিনের। এই সংস্থার মাধ্যমে তিনি বিভিন্ন সংস্থায় বিনিয়োগ করেন। ফলে এদের সঙ্গে বোল্টের আর্থিক যোগাযোগটা একদিকে যেমন গভীর অন্যদিকে আস্থা রাখার মতো। এ কারণে উসাইন বোল্টও তার আর্থিক লেনদেনে প্রয়োজনীয়, গুরুত্বপূর্ণ এবং গোপনীয় তথ্য সার্ভিস কমিশনের কাছে দেওয়া রয়েছে। বোল্টের ম্যানেজার নুগনেন্ট ওয়াকার জামাইকার একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে তিনি বিনিয়োগ করেছেন সংস্থার মাধ্যমে। তিনি বলেছেন, ‘ঘটনার ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে আমরা এর গভীরে যেতে চাই। বোল্ট এই সংস্থার সঙ্গে ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে যুক্ত। ওর পুরো বিনিয়োগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’ সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, বোল্টের একাউন্ট থেকে কয়েক শ কোটি টাকা উধাও হয়ে গেছে। টাকার পরিমাণটা সঠিক জানানো হয়নি বোল্টের ম্যানেজারের পক্ষ থেকে।

বোল্টের অভিযোগে জামাইকার তদন্তকারী সংস্থা খোঁজখবর নিতে শুরু করেছে। সংস্থার লাইসেন্স ও বিনিয়োগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ১২ জানুয়ারি সংস্থার কাছে অভিযোগ আসে বোল্টের কাছ থেকে।

২০১৬ ব্রাজিলে রিও অলিম্পিক গেমসের পরের বছর ২০১৭ সালে অ্যাথলেটিকস থেকে অবসর নেন উসাইন বোল্ট। তার গলায় রয়েছে অলিম্পিক গেমসের আট স্বর্ণপদক।  আরো আছে ১১টা বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে জেতা স্বর্ণপদক। চীন ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে তিনি ১০০ মিটার ও ২০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণ জয়ের পাশাপাশি  রেকর্ড গড়েন।

২০১২ ও ২০১৬ সালে অলিম্পিকে তিনি দুটো অলিম্পিক গেমসে আগে থেকে বলে কয়ে স্বর্ণ পদক তুলে নিয়েছেন। ২০০ মিটারে তিনি এখনো পর্যন্ত দ্রুততম খেতাব ধরে রেখেছেন। স্প্রিন্টের পাশাপাশি ফুটবলের প্রতি বোল্টের আগ্রহের কথা সবার জানা। কিন্তু এখন তার টেনশন টাকা নিলো কে? চোরের সন্ধান করছেন উসাইন বোল্ট।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


আরো সংবাদ
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com