নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
০৩ অগাস্ট ২০২১, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

ফিঞ্চ-মার্শ তাণ্ডবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার চ্যালেঞ্জিং স্কোর

ক্রীড়া ডেস্ক
বৃহস্পতিবার, ১৫ জুলাই, ২০২১, ৯:০৮ পূর্বাহ্ন
মিচেল মার্শের উইকেট নেয়া ফ্যাবিয়েন অ্যালেন

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচে জিতে ইতোমধ্যে সিরিজ জিতে ফুরফুরে মেজাজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

শেষ দুই ম্যাচে তাই বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে দুই ম্যাচের দুই ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়কে। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লক্ষ্যে আজ চতুর্থ ম্যাচে ১৮৯ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোরই গড়েছে অজিরা।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওবেদ ম্যাককয়ের এক ওভারেই ১৭ রান তুলে ম্যাচ পুরোপুরি অস্ট্রেলিয়ার নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গিয়েছিল অজিরা। কিন্তু পরের তিন ওভারে দুর্দান্ত বোলিং করে ৪টি উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অবিশ্বাস্য জয় এনে দেওয়ার পাশাপাশি ম্যাচ সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছিলেন ম্যাককয়। এই পেসারকে সিরিজের শেষ দুই ম্যাচের স্কোয়াডে রাখা হয়নি।

আর সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটিতে দলের বিপদের সময়ে ব্যাট হাতে নেমে ৩৬ বলে ৬১ রানের এক চমৎকার ইনিংস খেলেন শিমরন হেটমায়ার। এই ম্যাচটিতেও জয় পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং হেটমায়ার ম্যাচ সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। কিন্তু সিরিজের শেষ দুই ম্যাচের স্কোয়াডে নেই এই ব্যাটসম্যানও।

হালকা চোটের কারণে ম্যাককয় ও হেটমায়ারকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে চতুর্থ ও পঞ্চম ম্যাচের আগে। তাদের দুইজনের বদলে ক্যারিবিয়ান স্কোয়াডে যোগ করা হয়েছে দুই স্পিনার অকিল হোসেন ও কেভিন সিনক্লেয়ারকে। অন্যদিকে, চোটের কারণে প্রথম তিন ম্যাচে খেলতে না পারা নিয়মিত অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড নেই আজকের ম্যাচেও।

এমনই অবস্থায় আজ হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারালেও দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে মাত্র ৫৮ বলে ১১৪ রান তুলে বড় স্কোর গড়ারই ইঙ্গিত দেন অ্যারন ফিঞ্চ ও মিশেল মার্শ। তবে তাদের সেই আশাকে ধূলিসাৎ করে দিয়ে মাত্র ৬৩ রানের বিনিময়ে পাঁচটি উইকেট তুলে নিয়ে অজিদের লাগাম টেনে ধরে ক্যারিবীয়রা।

তবুও শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৮৯ রানের পুঁজি গড়তে সমর্থ হয় সফরকারীরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৫ রান করেন মিচেল মার্শ। তার ৪৪ বলের এই টর্ণেডো ইনিংসে ছিল ছয়টি বিশাল ছক্কার সঙ্গে চারটি চারের মার। ফিফটি করেন ফিঞ্চও, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৩ রান আসে তার ব্যাট থেকেই। অধিনায়কের ৩৭ বলের এই ঝোড়ো ইনিংসে ছিল পাঁচটি চারের সঙ্গে তিনটি ছক্কার মার। এছাড়া তৃতীয় সর্বোচ্চ ২২ রান আসে ড্যান ক্রিশ্চিয়ানের ব্যাট থেকে।

উইন্ডিজের পক্ষে এদিনও সফল বোলার ছিলেন যথারীতি হেইডেন ওয়ালশ জুনিয়র। চার ওভারে ২৭ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন এই স্পিনার। এ নিয়ে চার ম্যাচে ১১টি উইকেট ঝুলিতে পুরলেন জুনিয়র ওয়ালশ। এছাড়া ওশানে থমাস, আন্দ্রে রাসেল ও ফ্যাবিয়ান অ্যালেন নেন একটি করে উইকেট।

সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি হবে ১৭ জুলাই বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৫টায়, ড্যারেন স্যামি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: এভিন লুইস, লেন্ডল সিমন্স, ক্রিস গেইল, আন্দ্রে ফ্লেচার, নিকোলাস পুরান (অধিনায়ক), আন্দ্রে রাসেল, অকিল হোসেন, হেইডেন ওয়ালশ, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, শেলডন কটরেল ও ওশানে থমাস।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো সংবাদ