১৫ অক্টোবর ২০১৮ || সোমবার || ০৫:৪৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

সংসদে এমপিদের প্রশ্নবানে জর্জরিত শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ।।

জাতীয় সংসদে এমপিদের প্রশ্নবানে জর্জরিত হয়ে পড়েন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। জিপিএ ৫ বিক্রি করা, প্রশ্নফাঁস, সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়া, নতুন প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি, ভবন নির্মানসহ নানা বিষয়ে প্রশ্নের উত্তর দেন শিক্ষামন্ত্রী। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে আসন্ন বাজেটের উপর আলোচনায় এমপিদের নানা প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বিভিন্ন যুক্তি খন্ডান।
শিক্ষামন্ত্রী সংসদ সদস্যদের অনুরোধ করেন প্রকৃত তথ্য জানার। তিনি বলেন, ‘আমার উপর অবিচার করবেন না। দয়া করে প্রশ্নত্তোরের বুলেট অংশ পড়ুন। তাহলেই পুরো বিষয়টি পরিষ্কার হবে।’

মন্ত্রী বলেন, একটি টেলিভিশনে জিপিএ ৫ বিক্রি নিয়ে প্রতিবেদন করেছে। কিন্তু তারা সুনির্দিষ্ট করে বলতে পারেনি একটি জিপিএ ৫ বিক্রি হয়েছে। এরপরও আমরা দু’টি তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। যাদের ব্যাপারে অভিযোগ এসেছে তাদের বহিষ্কার করেছি। শীঘ্রই কমিটি প্রতিবেদন দিবে। এরপর বিষয়টি সবাই বুঝতে পারবেন। আমরা কোনো কিছু গোপন রাখবো না।
প্রশ্নফাঁসের বিষয়ে তিনি বলেন, শুধুমাত্র এমসিকিউ অংশের ৩০ নম্বরের প্রশ্ন পরীক্ষা শুরুর পর ফাঁস হয়েছিলো। সেটাও সব বিষয়ে নয়। আমাদের পদক্ষেপের ফলে এইচএসসি পরীক্ষায় আর প্রশ্ন ফাঁস হয়নি।

সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার ব্যাপারে বলেন, আমার বক্তব্যের খন্ডিত অংশ একটি পত্রিকায় প্রকাশ করেছে। আমি বলেছিলাম, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার আগে ডিআইএর কর্মকর্তারা পরিদর্শনে গেলে খাম রেডি থাকতো। তখন সকলে সহনীয় মাত্রায় ঘুষ গ্রহণের অনুরোধ জানাতো। যেটা আমরা আসার পর বন্ধ করেছি। অথচ ওই পত্রিকা বলছে, আমি নামি সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খেতে বলেছি। যা মোটেই ঠিক নয়।

এমপিওভুক্তির ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, অর্থপ্রাপ্তি ছাড়া এমপিওভুক্তি সম্ভব নয়। কারন একবার এমপিও দেওয়া হলে ও পদ তৈরি হলে সেটা স্থায়ী হয়ে যায়। মাসে মাসে, বছর বছর এমপিওভুক্ত হওয়া শিক্ষক-কর্মচারিদের বেতন-ভাতা দিতে হয়। তবে অর্থমন্ত্রী অর্থ বরাদ্দের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন। আমরা এমপিওভুক্তির প্রক্রিয়া শুরু করেছি। তবে ব্যাপারটি সবাইকে বুঝতে হবে, একবারে সকলকে এমপিও দেওয়া সম্ভব নয়।

মন্ত্রী বলেন, চলতি বছরের মধ্যে ২০ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভবন নির্মান সম্পন্ন হবে। এছাড়া মাদ্রাসা শিক্ষা আধুনিকায়ন করা হয়েছে।
মন্ত্রী তাঁর বক্তব্যের শেষে আবারও সকল সংসদ সদস্যদের অনুরোধ করেন, প্রকৃত তথ্য জানার জন্য। আর দয়া কওে প্রশ্নোত্তরের বুলেট অংশ পড়ার জন্য।

Facebook Comments


© All rights reserved © 2017 Onnodristy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com