ব্রেকিং নিউজ
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

নিজেকে বাঁচাতে সাংবাদিক আরিফকে যে প্রস্তাব ডিসির

অন্যদৃষ্টি অনলাইন।।

মধ্যরাতে ঘরের দরজা ভেঙে সাংবাদিককে তুলে নিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় সদ্য প্রত্যাহার হওয়া কুড়িগ্রামের ডিসি সুলতানা পারভীনের বিরুদ্ধে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে এসেছে।

জানা গেছে, জামিনে মুক্ত হওয়ার পর সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে ফোন দিয়েছিলেন সুলতানা পারভীন। নিজেকে রক্ষায় মিডিয়ার সামনে আরিফকে কথা না বলার জন্য অনুরোধও করেছিলেন তিনি।

আরিফের সঙ্গে ডিসি সুলতানার কথোপকথনের একটি অডিও প্রকাশ করেছে বাংলা ট্রিবিউন।

ওই অডিওতে ডিসি সুলতানা পারভীনকে বলতে শোনা যাচ্ছে- ‘এখন মিডিয়াকে অ্যাভয়েড (এড়ানো) করে থাকো। মিডিয়াতে কথা বলো না। দেখা যাক আল্লাহ ভরসা। তোমার ভবিষ্যৎ নিয়ে আপাতত চিন্তা করার দরকার নেই। ভবিষ্যতের নিরাপত্তা নিয়েও চিন্তা করার কিছু নেই। আমরা তোমার পাশে থাকব। তোমার মামলা প্রত্যাহার করে নেব। একটু সময় দিও। একটু পজিটিভলি দেখতে হবে।’

সূত্রে জানা গেছে, জামিন নিয়ে কারাগার থেকে বের হওয়ার পর পরই এক ব্যক্তির মাধ্যমে সাংবাদিক আরিফুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ প্রস্তাব দিয়েছিলেন ডিসি সুলতানা পারভীন।

সুলতানা পারভীন আরিফকে ফোনালাপে বলেন, ‘যাই হোক একটি ঘটনা ঘটে গেছে। তুমি একটু রেস্ট নাও। যাও। একটু নিরিবিলি থাকো।’

এ কথোপকথনে তিনি যে পুরো ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন, তার প্রমাণ পাওয়া যায়। কথোপকথনে এনকাউন্টারে দেয়ার হুমকি পাওয়ার মতো অপরাধ করেছেন কিনা সাংবাদিক আরিফ তা জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘এনকাউন্টারের মানসিকতা আসলে আমাদের ছিল না। ওইভাবে ছিল না।’

ওই অডিও রেকর্ডে শোনা যায়, ডিসি সুলতানা পারভীন আরিফের কাছে প্রথমে তার অবস্থা জানতে চান। আরিফ তখন তাকে বেধড়ক মারধর কেন করা হয়েছে তা জানতে চান। একই সঙ্গে তার কাছ থেকে চোখ বাঁধা অবস্থায় স্বাক্ষর নেয়া চারটি কাগজ ফেরত চান।

প্রত্যুত্তরে ডিসি সুলতানা পারভীন বলেন, ‘আচ্ছা ঠিক আছে, আমি তোমাকে ফেরত দেব… কথা বলে নিজে আমি তোমাকে ফেরত দেব… যদি নিয়ে থাকে ওরা। কোন কাগজে সই নিয়েছে। তোমার মোবাইল কোর্টের ইয়াতে সই ছিল, বুঝছো।’

আরিফ এ সময় বলেন, ‘আমার চোখ বাঁধা অবস্থায় চারটা সই নিয়েছে।’ প্রত্যুত্তরে ডিসি বলেন, ‘মোবাইল কোর্টের আদেশে তোমার সই নিয়েছে। ওটা মোবাইল কোর্টের ইয়াতেই। আচ্ছা, যাই হোক এখন ঘটনা যেভাবে ঘটে গেছে, যা ঘটেছে তুমিও ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেইখো। আমি নিজেও আসলে অনুতপ্ত। তুমি একটু রেস্ট নাও। যাও। থাকো। নিরিবিলি একটু থাকো, ঠিক আছে।’

আরিফুল ইসলাম এ সময় এনকাউন্টার দেয়ার মতো অপরাধ করেছেন কিনা তা ডিসির কাছে জানতে চান। প্রত্যুত্তরে ডিসি সুলতানা পারভীন বলেন, ‘এনকাউন্টারের মানসিকতা আসলে আমাদের ছিল না। ওইভাবে ছিল না।’

আরিফ ডিসিকে বলেন, আপনি আমাকে একদিন ডাকতে পারতেন, আমি কি আসতাম না? এর উত্তরে ডিসি বলেন, ‘না, সেটা আসতা। এখনও আসবা, সমস্যা নাই। এখন ধরো যে, কষ্ট তো তুমিও পাচ্ছো, কষ্ট আমিও… হয়ে গেছে যেটা, এটা এদিকে দেখতে হবে একটু পজিটিভলি। এটাই বলার জন্য…।’

এ সময় ডিসিকে উদ্দেশ করে আরিফ বলেন, ‘তারা কী উদ্দেশ্যে এই কাজটি করলেন এটা আমার জানা বাঞ্ছনীয়। এবং তারা আমার চারটি কাগজে সই নিয়েছে, কেন নিয়েছে এটা আমার দেখতে হবে। আমার দুই নামেই সই নিয়েছে তারা। এবং আমি আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে খুবই চিন্তিত।’

প্রত্যুত্তরে ডিসি বলেন, ‘তোমার ভবিষ্যৎ নিয়ে এতটা চিন্তিত হওয়ার কিছু নাই। চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই ভবিষ্যৎ নিরাপত্তা নিয়ে, ভালো থাকবা ইনশাল্লাহ।’

মিডিয়ায় ডাকতে পারে জানালে ডিসি বলেন, ‘এখন কি করতে চাচ্ছো? আমি যেটা বলবো যে এখন মিডিয়াকে অ্যাভয়েড করে থাকো। যাও। দেখা যাক আল্লাহ ভরসা। আমরাও তোমার পাশে আছি আর কী।’

আরিফ এ সময় আবার চোখ বাঁধা অবস্থায় স্বাক্ষর করা কাগজের প্রসঙ্গ তুললে ডিসি বলেন, ‘ঠিক আছে আমি খোঁজ নিয়ে দেখি। এটা তো মোবাইল কোর্টের নির্দেশনাতেই ছিল। অন্য কিছুতে নেয়নি। আর তোমার বিষয়ে অত ইয়া তো আমাদের…যাই হোক… ঘটনাটা ঘটেছিল।’

মামলা প্রসঙ্গে ডিসি বলেন, ‘তোমার মামলা প্রত্যাহার করে দেব, সমস্যা নাই। একটু সময় দিও। একটা-দুইটা শুনানির সময় লাগবে। তোমার চাকরির ব্যাপারেও আমি দেখবো। চাকরির ব্যাপারে কোনো টেনশন করো না।’

এ ব্যাপারে আরিফুল ইসলাম বলেন, কারাগার থেকে বের হওয়ার পর জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন এক ব্যক্তির মাধ্যমে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এ সময় আমি তার সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চাই। আমি এ সময় তাকে কিছু প্রশ্ন করি। তিনি এসব প্রশ্নের কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। তিনি আমাকে মামলা প্রত্যাহার করে নেয়ার আশ্বাস দিয়ে চুপচাপ থাকতে বলেন। আমি আসলে তখন আতঙ্কিত ছিলাম। আমি আমার ভবিষ্যৎ নিয়েও চিন্তিত ছিলাম।

তবে আরিফের সঙ্গে কথোপকথনের বিষয়ে সুলতানা পারভীনের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments


Leave a Reply

শিরোনাম
সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন ঝিনাইদহের শৈলকুপায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু মহম্মদপুরে একাধিক গরু চুরি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার কারিগরির শিক্ষক-কর্মচারীগণের মে মাসের এমপিওর চেক ছাড় শৈলকুপায় মার্ডারকৃত গ্রামে মেহগনি বাগান কর্তন এম এ মজিদ সায়েন্স কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম এ মজিদ আর নেই সুন্দরবনে আম্ফানে ক্ষয়ক্ষতি পৌনে দুই কোটি টাকা রামপালে আম্পানের তান্ডবে সপ্তাহ ধরে ২ শত পরিবার পানি বন্দি, মৎস্য ঘের ভেসে কোটি টাকার ক্ষতি খুলনা বটিয়াঘাটায় শর্ট সার্কিটে পুড়লো ২৪ দোকান, ৪৮ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি করোনা আক্রান্ত’র বাড়িতে খাদ্য ও ঔষধ পৌঁছে দিল মারুফুল আলম ইএনও নোয়াখালীতে ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ৩, আক্রান্ত ৫৯ ঈদ পূর্ণমিলন অনুষ্ঠানে ফ্রি ব্লাডটেস্ট করল কল্যাণের শপথ যুবসংঘ করোনা ভাইরাসে দেশে একদিনে আরও ২২ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ১৫৪১ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ আগামী পাঁচ দিন বজ্রসহ ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা ঘরে থাকা শিশুদের জন্য ধ্রুব এষ-কণক আদিত্য’র ঈদ উপহার মিস ইউনিভার্সের এক সুন্দরীর লাশ ‍উদ্ধার পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় চরম ভোগান্তিতে ঝিনাইদহের চানপাড়াবাসী মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীগণের মে/২০২০ মাসের এমপিও চেক ছাড় যমুনায় নৌকাডুবিতে ৫৭ জন জীবিত উদ্ধার, নিখোঁজ ১৭ জন ভারতের সাথে যুদ্ধের প্রস্তুতি চীনের ঝিনাইদহ সাধুহাটি পিডিপি সাব-স্টেশনের অবহেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কৃষক আহত একজন আবুল বাশার নাদিম আলেকজান্ডার মেঘনা বিচে লোকসমাগম নিষিদ্ধ ঝিনাইদহ সাধুহাটিতে বাংলা মদসহ বাংলাদেশ নাগরিক লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী আটক

© All rights reserved © 2017 onnodristy.com

Theme Download From ThemesBazar.Com