ব্রেকিং নিউজ
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

ঐতিহাসিক ০৭ই মার্চের পটভূমি

মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম।।

শনিবার ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। বাঙালি জাতির দীর্ঘ স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে এক অনন্য দিন।

১৯৭১ সালের এই দিনে ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) এক বিশাল জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ডাক দেন।

‘ভাইয়েরা আমার, আমি প্রধানমন্ত্রিত্ব চাই না।…এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভরাট কণ্ঠের এই আওয়াজে আজ সারা দেশ মুখর হবে। আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। ১৯৭১ সালের এই দিনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (তৎকালীন রেসকোর্স ময়দান) ১৯ মিনিটের এক জাদুকরি ভাষণে বাঙালি জাতিকে স্বপ্নে বিভোর করেছিলেন বঙ্গবন্ধু। এরপরই সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ, ৯ মাসের লড়াই এবং স্বাধীনতা অর্জিত হয়।

ওই দিন বিশাল জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতাসংগ্রামের ডাক দেন। এদিন লাখ লাখ মুক্তিকামী মানুষের উপস্থিতিতে এই মহান নেতা বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করেন, ‘রক্ত যখন দিয়েছি, রক্ত আরও দেব, এ দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়ব, ইনশা আল্লাহ।’

বঙ্গবন্ধুর প্রেরণাদায়ী সেই ভাষণ বাঙালি জাতির কাছে সব সময়ই বিশেষ কিছু। ২০১৭ সালে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ইউনেসকো বিশ্ব ইতিহাসের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে গ্রহণ করে ভাষণটিকে। সংস্থাটি বিশ্বের ৭৮টি ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ দলিল, নথি ও বক্তৃতার মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণও অন্তর্ভুক্ত করে। এরপর সরকারিভাবে দিবসটি আড়ম্বরের সঙ্গে পালন করা হয়। এবারও বঙ্গবন্ধুর দল আওয়ামী লীগ নানা কর্মসূচি নিয়েছে। সরকারের বিভিন্ন বিভাগও নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করবে।

রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানরেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান‘ভাইয়েরা আমার, আমি প্রধানমন্ত্রিত্ব চাই না।…এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভরাট কণ্ঠের এই আওয়াজে আজ সারা দেশ মুখর হবে। আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। ১৯৭১ সালের এই দিনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (তৎকালীন রেসকোর্স ময়দান) ১৯ মিনিটের এক জাদুকরি ভাষণে বাঙালি জাতিকে স্বপ্নে বিভোর করেছিলেন বঙ্গবন্ধু। এরপরই সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ, ৯ মাসের লড়াই এবং স্বাধীনতা অর্জিত হয়।

ওই দিন বিশাল জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতাসংগ্রামের ডাক দেন। এদিন লাখ লাখ মুক্তিকামী মানুষের উপস্থিতিতে এই মহান নেতা বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করেন, ‘রক্ত যখন দিয়েছি, রক্ত আরও দেব, এ দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়ব, ইনশা আল্লাহ।’

বঙ্গবন্ধুর প্রেরণাদায়ী সেই ভাষণ বাঙালি জাতির কাছে সব সময়ই বিশেষ কিছু। ২০১৭ সালে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ইউনেসকো বিশ্ব ইতিহাসের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে গ্রহণ করে ভাষণটিকে। সংস্থাটি বিশ্বের ৭৮টি ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ দলিল, নথি ও বক্তৃতার মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণও অন্তর্ভুক্ত করে। এরপর সরকারিভাবে দিবসটি আড়ম্বরের সঙ্গে পালন করা হয়। এবারও বঙ্গবন্ধুর দল আওয়ামী লীগ নানা কর্মসূচি নিয়েছে। সরকারের বিভিন্ন বিভাগও নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করবে।

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ জাতির জনকের ঐতিহাসিক ভাষণ সরাসরি সম্প্রচার করতে দেয়নি তখনকার পাকিস্তান সরকার। কিন্তু পরদিন বিভিন্ন পত্রিকায় তা ফলাও করে প্রকাশিত হয়। ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু মঞ্চে আসেন বেলা ৩টা ২০ মিনিটে। মঞ্চে উঠেই তিনি জনতার উদ্দেশে হাত নাড়েন। তখন পুরো সোহরাওয়ার্দী উদ্যান লাখ লাখ বাঙালির কণ্ঠে ‘তোমার দেশ আমার দেশ, বাংলাদেশ বাংলাদেশ, তোমার নেতা আমার নেতা শেখ মুজিব, শেখ মুজিব’ ধ্বনিত হয়। বঙ্গবন্ধু দরাজ গলায় তাঁর ভাষণ শুরু করেন, ‘ভাইয়েরা আমার, আজ দুঃখভারাক্রান্ত মন নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি।’

পাকিস্তান রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ২৩ বছরের আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতিসত্তা, জাতীয়তাবোধ ও জাতিরাষ্ট্র গঠনের যে ভিত রচিত হয়, তারই চূড়ান্ত পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণ দেন। এতে ছাত্র-কৃষক-শ্রমিকসহ সর্বস্তরের বাঙালি নতুন প্রেরণা খুঁজে পায়।

একাত্তরের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর এই উদ্দীপ্ত ভাষণকে স্বাধীনতার ঘোষণা হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। এটাকে মুক্তিযুদ্ধের দিকনির্দেশনাও বলা হয়। এই ভাষণের পরই মুক্তিকামী মানুষ ঘরে ঘরে চূড়ান্ত লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় ছিনিয়ে আনে বাঙালি জাতি। এই বিজয়ের মধ্য দিয়ে বিশ্বমানচিত্রে জন্ম নেয় স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।

 

লেখক

প্রভাষক, ইংরেজি, সমষপুর বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ,

ও সদস্য সচিব, এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটি।

Facebook Comments


Leave a Reply

শিরোনাম
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার করলেন যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা নবাবগঞ্জে হতদরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ নওগাঁয় পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু সরিষাবাড়ীতে করোনায় নির্জন বাসাবাড়িতে চলছে চুরি, নৌ সদস্যের মামলা যশোরে কাবিখার ৫৫৫ বস্তা চাল সহ আটক-১ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনায় এম.পি নাছির উদ্দিন মিরপুরে করোনা সংক্রমণ  প্রতিরোধে জেলা প্রশাসকের জনসচেতনতা ঝিনাইদহের মহারাজপুর ইউনিয়নে সরকারী ত্রান সামগ্রী পেলেন ২ শত পরিবার মাগুরা শ্রীপুরে করোনা সন্দেহে ১ বিদেশ ফেরত ব্যাক্তির নমুনা সংগ্রহ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ছিনতাইকারীর হাতুড়ী পেটায় এক হোমিও ডাক্তার আহত অসহায় মানুষের সহায়তার নামে চাঁদাবাজি করলে কঠোর ব্যবস্থা: হানিফ ভেড়ামারায় পাবনা সুইটসকে জরিমানা এ ঘর থেকে ও ঘর ত্রাণ নিয়ে ছুটাছুটি হরিণাকুণ্ডু উপজেলা নির্বাহী অফিসার    পরকীয়াঃপ্রেমিকের গলিত লাশ উদ্ধার পাবনায় অটো, অটো রিক্সা ও মিশুক শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে চাল বিতরণ নওগাঁয় ৪০ হাজার ৫’শ পরিবারের মধ্যে খাদসামগ্রী ও আর্থিক সহায়তা প্রদান ৭০ বছরের বৃদ্ধা সাবিয়া সহ ৩০ পরিবারকে রাতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিলেন নওগাঁর ডিসি শরীয়তপুর পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডে নিম্নবিত্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কমলনগরে দুই শিশুর মৃত্যুর পর ৯ পরিবারকে লকডাউন ঝিনাইদহের হেশপুরে ট্রাকের ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত-১ রাত ৯টায় ত্রাণ পৌছে দিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালাউদ্দীন মনজু গণপরিবহন ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ সহায়তার নামে কোনো রকম চাঁদাবাজি বরদাস্ত করা হবে না : হানিফ হতদরিদ্রদের মাঝে ভিপি আব্দুল আজিজের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ নওগাঁয় ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-২

© All rights reserved © 2017 onnodristy.com

Theme Download From ThemesBazar.Com