ব্রেকিং নিউজ
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

ভারতে বাংলাদেশের বার্ষিক রফতানি ১ বিলিয়ন ডলার, দুশ্চিন্তা ভারতের শিল্প মহলে

দক্ষিণ ভারতের তিরুপুরে ভারতের একটি গার্মেন্ট কারখানা, ইনসেটে ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। ছবি : সংগৃহীত

অন্যদৃষ্টি ডেস্ক।।

এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ থেকে ভারতে বার্ষিক রফতানির পরিমাণ ১ বিলিয়ন বা ১০০ কোটি মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে।

ভারত সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান বলছে, গত ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে বাংলাদেশ থেকে ভারত ১০৪ কোটি ডলারেরও বেশি মূল্যের পণ্য আমদানি করেছে, যা একটি রেকর্ড।

দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের ক্ষেত্রে এটিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক বলে মনে করা হলেও ভারতের বিশেষত গার্মেন্ট শিল্প এই প্রবণতায় খুবই উদ্বিগ্ন।

বাংলাদেশ থেকে রফতানিতে রাশ টানার জন্য তারা সরকারের কাছে জোরালো দরবার করছেন।

কিন্তু ভারতে বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান রফতানি সে দেশে কেন আর কী ধরনের ‘ব্যাকল্যাশ’ তৈরি করছে?

ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক আছে দুনিয়ার প্রায় ৬৭টি এলডিসি বা স্বল্পোন্নত দেশের, তার মধ্যে অ্যাঙ্গোলা বা মোজাম্বিক ছাড়া কখনো কোনো দেশ থেকে বার্ষিক রফতানি ১ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়নি।

বাংলাদেশ সেই বিরল তালিকায় ঢুকে পড়েছে মূলত তৈরি পোশাক রফতানিতে ভর করেই, গত অর্থ বছরে যার পরিমাণ বেড়েছে প্রায় ৮২ শতাংশ।

উদ্বিগ্ন ভারতীয় গার্মেন্ট নির্মাতারা এখন বাংলাদেশী পণ্যের ডিউটি-ফ্রি অ্যাক্সেস নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন।

যদিও দিল্লির গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘ইকরিয়েরে’র (ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর রিসার্চ অন ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক রিলেশনস) অধ্যাপক অর্পিতা মুখার্জি বলছেন, শুধু শুল্কে ছাড় পাওয়াটাই বাংলাদেশের একমাত্র অ্যাডভান্টেজ নয়।

তিনি বিবিসিকে বলছিলেন, “গার্মেন্ট খাতে ভারত কিন্তু আর বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতার জায়গাতেই নেই। থ্রিডি প্রিন্টারে ডিজাইনিং থেকে শুরু করে নানা প্রযুক্তিতে তারা ওখানে প্রচুর বিনিয়োগও করেছে, তার সুফলও পাচ্ছে।”

“একটা তুলনামূলকভাবে ধনী দেশ হয়েও আপনি হাত গুটিয়ে বসে থাকবেন, আর বলবেন বাংলাদেশের রফতানি কীভাবে বাড়ছে – তা তো হয় না।”

“আমাদের শ্রমশক্তিও আর সস্তা থাকছে না। বাংলাদেশ এসিইজেড বা বিশেষ অর্থনৈতিক জোনের ফায়দা তুলছে, ওদিকে আমাদের এসিইজেড-কে আমেরিকা চ্যালেঞ্জ করে বসে আছে!”

“সুতরাং আমাদের কোনো পলিসিরই ঠিকঠাক নেই। ফলে দোষটা তো পলিসির, বাংলাদেশের এক্সপোর্টের তো আর দোষ হতে পারে না”, বলছেন ড: মুখার্জি।

প্রেমাল উদানি ভারতের শীর্ষস্থানীয় গার্মেন্ট শিল্পপতি, অ্যাপারেল এক্সপোর্ট প্রোমোশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যানও ছিলেন তিনি।

বিবিসিকে তিনি আবার বলছিলেন, “বাংলাদেশ থেকে ভারতে তৈরি পোশাক রফতানি এখন খুব তীব্র গতিতে বাড়ছে – বছরে প্রায় ৩০ শতাংশ হারে।”

“কিন্তু আমাদের মূল অভিযোগ হল, সার্টিফিকেট অব অরিজেনের নিয়মকানুন কিন্তু বাংলাদেশ মানছে না!”

“মানে চীন বা অন্য কোনো জায়গা থেকে ফেব্রিক কিনে নিজের দেশে সেলাই করে সেটাই তারা ভারতে ডিউটি-ফ্রি রফতানি করছে।”

“বাজার এগুলোতে ছেয়ে যাচ্ছে, জিনস-বেসিক শার্ট-বা চিনো প্যান্টের মতো কোর প্রোডাক্টে দেশী নির্মাতারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ন।”

“আমাদের বক্তব্য হলো, বাংলাদেশকে শুল্ক ছাড় দেয়ার নামে আমরা তো চীনা পণ্যকে পেছনের দরজা দিয়ে ঢুকতে দিতে পারি না – একটা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তো থাকা উচিত”, বলছেন উদানি।

প্রেমাল উদানি কেটি কর্পোরেশন নামে যে অ্যাপারেল সংস্থার মালিক, তাদের মূল কারখানা তামিলনাডুর তিরুপুরে।

তামিলনাডুর ওই শহরকে ঘিরে অজস্র গার্মেন্ট কারখানা আছে, এই শিল্পমালিকদের সংগঠনও খুব শক্তিশালী।

বাংলাদেশ থেকে যেসব তৈরি পোশাক ভারতে আসছে, বাজারে সেগুলোর সরাসরি প্রতিযোগিতা এই শিল্পাঞ্চলে উৎপাদিত পণ্যের সঙ্গেই।

দিল্লির থিঙ্কট্যাঙ্ক রিসার্চ অ্যান্ড ইনফর্মেশন সিস্টেমে অর্থনীতিবিদ প্রবীর দে কিন্তু মনে করছেন, ভারতের গার্মেন্ট শিল্পে শক্তিশালী দক্ষিণ ভারতীয় লবি চাইলেও বাংলাদেশী পণ্যে নতুন করে শুল্ক বসানো সম্ভবই নয়।

তার কথায়, “ভারতে আনব্র্যান্ডেড গার্মেন্টের মূল হাবটাই হলো এই তিরুপুর। কিন্তু তারা এখন বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় এঁটে উঠতে পারছে না।”

“এখন তিরুপুর লবি বাংলাদেশের ডিউটি ফ্রি অ্যাকসেস বন্ধ করতে চাইলেও সেটা তো করা যাবে না। অসম্ভব। সে ক্ষেত্রে ওরা আমাদের ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব আরবিট্রেশনেও টেনে নিয়ে যেতে পারে।”

“ভারতীয়রা যেটা করতে পারেন তা হল নিজেদের প্রোডাক্টে আরো ভ্যালু অ্যডিশন করে সেটাকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন, কম্পিটিটিভিনেস বাড়াতে পারেন কিংবা প্রোডাকশনের খরচ কমাতে পারেন।”

“পাশাপাশি নতুন একটা ট্রেন্ড শুরু হয়েছে, বেশ কিছু ভারতীয় টেক্সটাইল সংস্থা আফ্রিকাতে গিয়েও কারখানা গড়ছেন। আফ্রিকাতে ওয়েজ আরবিট্রেজের (কম পারিশ্রমিক) সুবিধা নিয়ে উৎপাদন করে সেটাই আবার ভারতে রফতানি করছেন।”

“একইভাবে ভারতের কোম্পানি অরবিন্দ মিলস বাংলাদেশে গিয়ে কারখানা তৈরি করে ওখান থেকে ব্যবসা করছেন”, জানাচ্ছেন ড: দে।

আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় টিঁকে থাকতে হলে এগুলোই এখন ভারতীয় শিল্পপতিদের জন্য একমাত্র রাস্তা বলে মনে করছেন তিনি।

অধ্যাপক অর্পিতা মুখার্জিও তার সঙ্গে একমত -ডিউটি-ফ্রি অ্যাকসেসের সুবিধা ভারত নানা কারণে প্রত্যাহার করতে পারবে না।

তিনি বলছিলেন, “ডিউটি বাড়িয়ে ইমপোর্ট বন্ধ করা যায় না। সাময়িকভাবে গেলেও পাকাপাকিভাবে যায় না। বিদেশি মোবাইল ফোনে বিপুল ডিউটি বসিয়েও ভারতে কিন্তু মোবাইল ফোনের বিক্রিবাটা কমানো যায়নি।”

“আসলে সমস্যাটা আমাদের নিজস্ব – আমাদের ইন্ডাস্ট্রি খুব খারাপ সময়ের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে। এখন কি বাংলাদেশের ওপর ডিউটি বসিয়ে আর চীনকে জিরো ডিউটি দিয়ে আমাদের সমস্যার কোনো সমাধান হবে?

“বাংলাদেশ আমাদের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধুপ্রতিম প্রতিবেশী। দক্ষিণ এশিয়ায় যে ভারত নিজেকে নেতার ভূমিকায় দেখতে চায় সত্যিই কি তারা সেখানে বাংলাদেশকে ট্যাক্স করতে পারবে?”, প্রশ্ন ড: মুখার্জির।

ফলে অদূর ভবিষ্যতে বাংলাদেশের রফতানি, বিশেষ করে গার্মেন্ট, আরো বাড়বে এটা ধরে নিয়েই ভারতীয় নির্মাতাদের নিজেদের স্ট্র্যাটেজি নির্ধারণ করতে হবে বলে বিশেষজ্ঞদের অভিমত।

আর সেখানে সম্ভবত ভারত সরকারের বিশেষ কিছু করণীয়ও নেই।

সূত্র : বিবিসি

Facebook Comments


শিরোনাম
খেলোয়াড় হবো : রহিমা ।। অনেক দূর যেতে চাই : প্রান্তি নাহার পোরশায় মডেল মসজিদ ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন পাকিস্তানে হাসপাতালে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ৭ ৪০তম বিসিএসের ফল ঈদের আগেই ৭ কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের ক্ষমতা ঢাবির নেই: উপ-উপাচার্য পর্নোগ্রাফিতে আসক্তদের ওপর ফেসবুক-গুগলের নজরদারি বিরোধীদলীয় নেতা হচ্ছেন রওশন ‘বালিশকাণ্ডে’ ৬২ কোটি টাকার দুর্নীতি, দায়ী ৩৪ প্রকৌশলী পোরশায় ওসির তৎপরতায় বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেলো পূজা মধুহাটী সপ্রাবি বঙ্গমাতা ফুটবলের ফাইনালে উঠলো বঙ্গমাতা ফুটবলের ফাইনালে রূপদাহ সপ্রাবি ২৪ তম বিশ্ব স্কাউট জাম্বুরীতে আমেরিকায় বাংলাদেশ স্কাউটস ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে অবৈধ গর্ভপাতের মূলহোতা রিনা পারভিন আটক কুষ্টিয়ার মিরপুরের জাসদ সভাপতি মহাম্মদ শরীফের স্ত্রীর মৃত্যু : জাসদ”র শোক লক্ষ্মীপুরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ১৯ দোকান পুড়ে ছাই : কোটি টাকার ক্ষতি ঢাকায় গণপিটুনিতে নিহত নারীর গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুুরে শোকের মাতম, সুষ্ট বিচারের দাবি হরিশংকরপুর আওয়ামী লীগের বিবাদমান দু’গ্রুপের দ্বন্দ নিরসনে শান্তি সমাবেশ করলেন, ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এমএড প্রথম বর্ষ পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ ১৫তম এনটিআরসিএ’র লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র প্রকাশ মাগুরার শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের জরাজীর্ণ  শিল্পকলা ভবনটি অবশেষে  সংস্কার , এমপিও না দেওয়ায় মাউশি মহাপরিচালককে তলব করল হাইকোর্ট মাগুরা   শ্রীপুরে “শিক্ষা ও চিকিৎসা সহায়তা ট্রাস্ট” গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ  খুলনা বিভাগীয় মহাসমাবেশে অংশ নিবেন মীর্জা ফকরুলসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ আব্দুল আলিম এর উদ্যোগে “পাটিকাবাড়ী বহুমূখী মাদ্রাসা ও হেফজখানা”র জন্য দোয়া কামনা ঝিনাইদহে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে  এক কৃষক নিহত
© All rights reserved © 2017 Onnodristy.Com
Theme Download From ThemesBazar.Com