ব্রেকিং নিউজ
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

১৫০০ কোটি টাকার টেন্ডার নিয়ে নানা প্রশ্ন

অন্যদৃষ্টি ডেস্ক।।

অন্যদৃষ্টি:-কামরুজ্জামান

সারা দেশের ৬২০০ সেতু ও কালভার্ট নির্মাণের দরপত্র নিয়ে চলছে নানা কথা। রাতে টেন্ডার ডকুমেন্ট পাঠিয়ে এক দিনেই সব দরপত্র বিক্রি দেখানো হয়। তবে দরপত্র জমা পড়ার হার হতাশাজনক। এখন চলছে দরপত্র যাচাই-বাছাই পরবর্তী কার্যক্রম। তড়িঘড়ি করে দেড় হাজার কোটি টাকার এসব সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পকে অনেকে পকেট ভারির প্রকল্প বলে মনে করছেন। এসব সেতুর মান কেমন হবে এ নিয়ে নানা প্রশ্ন শুরু হয়েছে। প্রভাবশালীরা এসব টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ করায় সেতুগুলো আদতে হবে কিনা এনিয়েও রয়েছে হাজারো প্রশ্ন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সাবেক চার দলীয় জোট সরকারের আমলে সারা দেশে অহেতুক কিছু সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছিল।ওই সব সেতু বানানোর কাজের সঙ্গে দেশের সাবেক মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও এমপি ও তাদের পরিবার জড়িয়ে যায়।মিডিয়ার রিপোর্টে দেখা যায়, রাস্তা নেই, অথচ ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছে। এবারও কি ওই রকম কিছু হবে? অভিযোগ রয়েছে, অনেক ঠিকাদার ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণ দরপত্রের বিষয়ে কিছুই জানতে পারেননি। আবার যাঁরা জেনেছেন, তাঁদের মধ্যে অনেকে দরপত্র সংগ্রহ করতে গিয়ে প্রভাবশালীদের কারণে দরপত্র কিনতে পারেননি। এ নিয়ে সাধারণ ঠিকাদারদের মধ্যে অসন্তোষ ও ক্ষোভ দেখা দেয়। সাধারণ ঠিকাদাররা জানান, মাত্র এক দিন সময় দেয়ায় অনেক ঠিকাদার দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারেননি। এ সুযোগে প্রভাবশালী একটি মহল দরপত্র নিয়ন্ত্রণ করছে।

দেশের বিভিন্ন উপজেলায় দরপত্র কিনতেই পারেননি সাধারণ ঠিকাদাররা। তারা জানান, এক দিন সময় দিয়ে কোনো দরপত্রের কার্যক্রম আগে হয়নি। এতে সাধারণ ঠিকাদাররা বেকায়দায় পড়েন। কাজ নিয়ে চরম নয়ছয় হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অধীন ‘গ্রামীণ রাস্তায় ১৫ মিটার দৈর্ঘ্য পর্যন্ত সেতু বা কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পের’ আওতায় ১২ই মে একটি দরপত্র বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। ওই বিজ্ঞপ্তিতে সারা দেশের ৬৪ টি জেলার ৪৯২ টি উপজেলায় সেতু নির্মাণের কথা বলা হয়। সীমিত দরপত্র পদ্ধতিতে (এলটিএম) এ টেন্ডার আহবান করা হয়। দরপত্র বিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়, দরপত্র প্রচারের তারিখ ১৩ই মে বৃহস্পতিবার। পরের দুই দিন ১৪ ও ১৫ই মে সরকারি ছুটি।

এরপর দরপত্র বিক্রির শেষ তারিখ হিসেবে ১৬ ই মে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়। ওই হিসেবে এক দিন দরপত্র বিক্রি করা হয়। দরপত্র গ্রহণের তারিখ ১৭ ই মে বেলা একটা পর্যন্ত নির্ধারণ করা ছিল। একই দিন বেলা চারটায় ঠিকাদারদের সামনে দরপত্র ডকুমেন্ট খোলা হয়। জেলা এবং উপজেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, ১৩ ই মে বৃহস্পতিবার সেতুর কথা উল্লেখ করে স্পেশাল মেসেজ (বিশেষ বার্তা) পাঠানো হয়। ওই বার্তায় ১৬ ই মে একদিন দরপত্র ডকুমেন্ট বিক্রির কথা জানানো হয়। এ রকম বিশেষ বার্তার চিঠি এর আগে কখনো পাননি বলে মানবজমিনকে জানান তারা। কুষ্টিয়া জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে জেলার ছয়টি উপজেলায় গ্রামীণ রাস্তায় সর্বোচ্চ ১৫ মিটার দীর্ঘ ১০৩টি সেতু ও কালভার্ট নির্মাণের জন্য বরাদ্দ আসে। ১২ ই মে রাতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর থেকে এ চিঠি দেয়া হয়। মাত্র এক দিনের মধ্যে সব প্রক্রিয়া শেষ করতে বলা হয়।

এর মধ্যে কুষ্টিয়া সদরে ২০টি, মিরপুরে ২৬টি, ভেড়ামারায় ৬টি, খোকসায় ১৩টি, দৌলতপুরে ২০টি ও কুমারখালী উপজেলায় ১৮টি সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ করার কথা রয়েছে। সব মিলিয়ে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ১৮ কোটি টাকা টাকা। কুষ্টিয়া উপজেলার এক প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জানান, কমপক্ষে ১০ দিন আগে টেন্ডার সংক্রান্ত এ ধরনের চিঠি আসে। সময় দিয়ে এসব কাজ করতে হয়। না হলে নানা সমস্যা হয়। এক দিনের মধ্যে এত কিছু করা, এবারই প্রথম দেখলাম। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বুরো সূত্রে জানা গেছে, মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে ৪ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৭টি সেতু বা কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পের বিপরীতে সিডিউল বিক্রি হয় ৩০৪টি। টেন্ডার সিডিউল সংখ্যায় অনেক হলেও এগুলো জমা দেয়া নিয়ে সরকার দলীয় লোকজনের মধ্যে দরকষাকষির অভিযোগ রয়েছে। ২৬টি ঠিকাদারি লাইসেন্সের বিপরীতে বিক্রি হয় ৩০৪টি সিডিউল। তবে সব সিডিউল বিক্রি হয়নি। সারা দেশে একই চিত্র পাওয়া গেছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) এবং ‘গ্রামীণ রাস্তায় ১৫ মিটার দৈর্ঘ্য পর্যন্ত সেতু বা কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পের’ প্রকল্প পরিচালক মানবজমিনকে বলেন, প্রকল্পের মাধ্যমে তিন বছরে সারা দেশে ১৩ হাজার সেতু নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে বর্তমান অর্থ বছরে ছয় হাজারের কিছু বেশি সেতু নির্মাণ করা হবে। এসব সেতু নির্মাণ করতে লাগবে দেড় হাজার কোটি টাকা।গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আছে বলে মনে করা হয়।এমন খবরে ডি-কোম্পানির কর্মকা- সম্পর্কে এফবিআইয়ের কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার জন্য যোগাযোগের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারতীয় এজেন্সিগুলো। ভারতীয় এজেন্সির মতে, ডি-কোম্পানি ও পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের মধ্যে সম্পর্ক বা যোগাযোগ আছে। এক্ষেত্রে মতিওয়ালা হলেন যোগাযোগের মূলে। এ ছাড়া পাকিস্তানের সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর সঙ্গেও মতিওয়ালার যোগসূত্র আছে। এর আগে তিনি ঘন ঘন পাকিস্তান সফর করতেন। এফবিআইয়ের তদন্ত অনুযায়ী, ১০ বছরের বৃটিশ ভিসা আছে মতিওয়ালার। এর মেয়াদ শেষ হবে ২০২৮ সালে। কিন্তু এরই মধ্যে পরিবারসহ তিনি অ্যান্টিগুয়া ও বারবুডায় নাগরিকত্ব পাওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছেন গত কয়েক মাস ধরে। তিনি দুবাইয়ের একটি কোম্পানিতে জমা করেছেন ২০ লাখ ডলারও।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, লন্ডনে পাকিস্তানি হাই কমিশন এরই মধ্যে মতিওয়ালার পক্ষ অবলম্বন করতে এগিয়ে এসেছে। পাকিস্তানি হাই কমিশন বৃটেনের ওয়েস্টমিনস্টার কোর্টের বিচারকের কাছে চিঠি লিখেছে। তাতে বলা হয়েছে, মতিওয়ালা একজন সম্মানিত ব্যবসায়ী। ডি-কোম্পানির সঙ্গে তার কোনো যোগসূত্র নেই। সরকারি একটি সূত্র জি নিউজকে বলেছেন, মতিওয়ালাকে গ্রেপ্তার করা নিয়ে পাকিস্তান ভয় পাচ্ছে এ জন্য যে, তাতে দাউদ ইব্রাহিম কোথায় আছেন তা প্রকাশ হয়ে পড়বে বিশ্ববাসীর সামনে। এফবিআইয়ের মতে, যুক্তরাষ্ট্রে মতিওয়ালা শুধু মাদক পাচার করেন এমন না। একই সঙ্গে তিনি কালো টাকাকে সাদা করার সঙ্গেও যুক্ত। তাকে ফাঁদে ফেলার জন্য এফবিআই তার সঙ্গে হেরোইন ব্যবসার একটি চুক্তি করে। তা ছাড়া অর্থ পাচার বিষয়েও তার কাছ থেকে তথ্য চেয়েছে এফবিআই। আদালতে মার্কিন সরকারের এক আইনজীবী বলেছেন, মতিওয়ালা বহুবার পাকিস্তানে গিয়েছেন এবং সাক্ষাত করেছেন দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে।

Facebook Comments


শিরোনাম
লন্ডনে দূত সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতে গো রক্ষার নামে গণপিটুনিতে নিহত ৩ দেশদ্রোহী বক্তব্যের জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে: কাদের গণআন্দোলনে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে : ফখরুল ইসলাম প্রিয়া সাহার নালিশ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র নিরেট ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে শপিং ব্যাগ থেকে নবজাতক উদ্ধার আটক -২ চরিত্র  রাঙ্গুনিয়ায় বিপুল উৎসাহ- উদ্দীপনায় দীর্ঘক্ষণ দাড়িয়ে নতুন ভোটারদের ছবি উত্তোলন নওগাঁর সাপাহারে মডেল মসজিদ কমপ্লেক্স ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন নওগাঁয় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ইস্যুতে সাংবাদিকদের সাথে বিএসডিও’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জিরো থেকে হিরো, পিয়ন থেকে কোটিপতি শরীয়তপুর সদর উপজেলার ত্রিশ বছরের পুরনো গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়কের বেহাল দশা মধ্যনগরে বন্যা কবলিতদের মাঝে ত্রান বিতরণ সেই ৭ খুদে কিশোরী দল ১১ জনে খেলে সেমিতে উঠলো… পাগলীটা মা হয়েছে, বাবা হয়নি কেউ! সেমিফাইনালে সাগান্না সরকারি প্রাইমারী স্কুল ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মোবাইল কোর্টে এক ব্যবসায়ীর জরিমানা, ১০ কেজি কারেন্ট জাল  জব্দ মোবারকগঞ্জ সুগার মিলে ৪১৪১ জন আখ চাষীর ভর্তুকি পেলেন ৫১লাখ, ৫৫ হাজার, ৫১১ টাকা   মুহাম্মদ আজাদ হোসাইন এর কবিতা   নাসিরনগর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে সলঙ্গার বিভিন্ন খাল গ্রাম আদালত বিষয়ক উঠান-সভা অনুষ্ঠিত বেনাপোল পুটখালী সীমান্তে ফেনসিডিল সহ আটক-১ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে  নারীর অধিকার নিশ্চিত করন সেমিনার অনুষ্ঠিত   
© All rights reserved © 2017 Onnodristy.Com
Theme Download From ThemesBazar.Com