ব্রেকিং নিউজ
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত হত্যার নেপথ্যে দুই কারণ

বিশেষ প্রতিবেদক।।

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি ও তার পরিবার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনে ওলামাদের সম্মানহানি করেছে এবং শাহাদাত হোসেন শামীমের প্রেম প্রত্যাখ্যান, মূলত এই দুই কারণে নুসরাতকে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছেন তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার। শনিবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার সাতজনকে জিজ্ঞাসাবাদে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে পিবিআই প্রধান বলেন, অধ্যক্ষ সিরাজের মুক্তির জন্য ৪ এপ্রিল জেলা প্রশাসকের কাছে নূর উদ্দিন ও শামীমরা স্মারকলিপি জমা দেন। ওইদিনই তারা জেলখানায় গিয়ে অধ্যক্ষ সিরাজের সঙ্গে দেখা করে। সেখানে সিরাজ নূরকে জিজ্ঞেস করে, তোমরা আমার জন্য কী করছো। আমি জেলে মরছি আর তোমরা তামাশা দেখছো। যার কারণে আমি জেলে আছি, তার একটা ব্যবস্থা করো। হয় তাকে মামলা তুলে নিতে বলো নাহলে তার একটা ব্যবস্থা করো। প্রয়োজনে তাকে মেরে ফেলো।

পিবিআই প্রধান বলেন, এই নির্দেশের পরদিন ৫ এপ্রিল ওই মাদরাসার পশ্চিম হোস্টেলে পাঁচজন (তিনজন ছেলে আর দুজন মেয়ে) মিলে পরিকল্পনা করে কীভাবে নুসরাতকে হত্যা করা হবে। পরিকল্পনার মিটিংয়ে শাহদাত হোসেন শামীম বলে, রাফিকে পুড়িয়ে মারতে হবে। এজন্য তিনটি বোরখা ও কেরোসিন কেনার পরিকল্পনা হয়। ওই পরিকল্পনা মিটিংয়ে পুড়িয়ে মারার কারণ হিসেবে বলা হয়, অধ্যক্ষ সিরাজকে জেলে পাঠিয়ে আলেম সমাজকে হেয় করা হয়েছে এবং শাহদাত হোসেন শামীম দফায় দফায় নুসরাতকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে প্রত্যাখাত হয়েছে। এরপর বোরখা ও কেরোসিন কেনার জন্য একজন মেয়েকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরিকল্পনা অনুযায়ী একজন মেয়ে তিনটি বোরখা ও কেরোসিন কিনে সকাল ৭টার আগেই মাদরাসার সাইক্লোন শেল্টারে এনে রাখেন। পরিকল্পনার অংশ বাইরে আরো ৫ জনের কাছে জানিয়ে রাখে শাহদাত হোসেন শামীম।

৬ এপ্রিল বান্ধবী নিশাতকে ছাদের ওপর কেউ মারধর করছে বলে শম্পা ওরফে চম্পা নামে এক ছাত্রীর দেওয়া সংবাদে ভবনের চারতলায় যান নুসরাত। সেখানে আগে থেকে লুকিয়ে ছিল শাহাদাতসহ চারজন। তারা নুসরাতকে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে মামলা ও অভিযোগ তুলে নিতে চাপ দেয়। কিন্তু নুসরাত অস্বীকৃতি জানালে ওড়না দিয়ে বেঁধে গায়ে আগুন দিয়ে তারা নির্বিঘ্নে বেরিয়ে যায়।

ওই দিনই তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় পাঁচদিন পর ১০ এপ্রিল রাতে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নুসরাত। বৃহস্পতিবার গ্রামের বাড়িতে তার দাফন সম্পন্ন হয়। এ ঘটনায় ৮ এপ্রিল রাতে অধ্যক্ষ ও পৌর কাউন্সিলরসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান।

Facebook Comments


শিরোনাম
৪% অতিরিক্ত কর্তন করা হলে তালা ঝুলিয়ে রাজপথে অবস্থান নিতে বাধ্য হবে শিক্ষক-কর্মচারীগণ মহেশপুর সোনালী ব্যাংক থেকে ৯৪ হাজার টাকা হাতিয়ে নিল এক প্রতারক রাঙ্গুনিয়ায় ঐতিহাসিক মুজিব নগর সরকার দিবস  উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস শার্শায় আবারও ম্যাস হিস্ট্রোরিয়া আক্রান্ত হয়ে শিক্ষকসহ ১৯ শিক্ষার্থী অসুস্থ্য নুসরাত, বিপন্ন মানবতা! শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আয় সরকারি কোষাগারে জমা করে অর্থ সমস্যার সমাধান করুন ১২ এপ্রিল প্রথম দফার ভোটেই মোদির ভরাডুবি!  কোটচাঁদপুরে ভাঙ্গা রাস্তায় নৌকা চালিয়ে সাধারন জনগনের অভিনব প্রতিবাদ ! ঝিনাইদ সদর নলডাঙ্গা পান বাজারে খাজনা বেশি আদায়ে বিক্ষুব্ধ পান ব্যবসায়ীরা কুবিতে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ নেতার মারধর নওগাঁয় জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ পালিত নওগাঁয় আপন ভায়রা ভাইকে মাদক মামলায় ফাঁসাতে গিয়ে বিপত্তি নওগাঁয় ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত চিরিরবন্দরে কালবৈশাখী ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি শরীয়তপুরে হতদরিদ্র চাউল বিক্রয় কেন্দ্রের ডিলারের বিরুদ্ধে চাউল আত্মসাৎ ও অনিয়মের অভিযোগ কোটচাঁদপুরে ভাঙ্গা রাস্তায় নৌকা চালিয়ে সাধারন জনগনের অভিনব প্রতিবাদ ! পাবনায় কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে প্রতারক গ্রেফতার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঝিনাইদহে প্রতিবেশীর ধারালো অস্ত্রের আঘাতে এক ব্যক্তি খুন। অবশেষে  মহম্মদপুর থেকে বিনোদপুর পর্যন্ত মহাসড়কটির  সংস্কার কাজ শুরু হলো। অবসর বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টে অতিরিক্ত কর্তন আদেশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ শিক্ষক ফোরামের কাল বৈশাখীর ঝড়ে ঘর ভেঙ্গে যাওয়া বিধবা রেশমার পাশে দাঁড়ালেন ঝিনাইদহ পৌর মেয়র চাকুরীতে প্রবেশের সময়সীমা ৩৫ বছর এবং অবসরের সময়সীমা ৬২ করার প্রস্তাব আসছে সংসদে  ‘ইসলাম একটি পবিত্র ধর্ম’, এটা যেন মাথায় থাকে –মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজমপুর দোবিলায় চারা মাছ অবমুক্ত করলেন এমপি চঞ্চল
© All rights reserved © 2017 Onnodristy.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com