ব্রেকিং নিউজ
সংবাদকর্মী আবশ্যক। আগ্রহীগণ সিভি, ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করুন - onnodristynews@gmail.com/ news@onnodristy.com. মুঠোফোন : ০১৯১১২২০৪৪০/ ০১৭১০২২০৪৪০।

এক সময়ের খরোস্রোতা  চিত্রা এখন বাঁধের কবলে  , বিলুপ্ত হচ্ছে দেশি প্রজাতীর  মাছ !

স্টাফ রির্পোটার
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত চিত্রানদীর বিভিন্ন স্থানে এপার ওপার বাঁধ দিয়ে পানির স্রোতকে বাঁধাগ্রস্থ করে ছোট ছোট দেশি মাছ ধরছে এক শ্রেণীর মৎস্য শিকারী। স্থানীয় প্রশাসন মোবাইল কোর্ট বসিয়ে যদি এ সমস্থ বাঁধ উচ্ছেদ ও মাছ শিকারীদের জরিমানা করে তাহলে দেশী প্রজাতির মাছের আর অভাব হবে না। স্থানীয়রা জানিয়েছে, চিত্রা নদীটি ঝিনাইদহ জেলার মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত হয়ে নড়াইল হয়ে বঙ্গোপসাগরে গিয়ে মিশেছে। ঝিনাইদহে সদর, কোটচাঁদপুর ও কালীগঞ্জ উপজেলার মধ্যে দিয়ে বেশ কয়েক কিলোমিটার এই নদী বয়ে গেছে। বর্ষার সময় এই নদীতে প্রচুর পানি ও দেশি মাছ থাকে। সেই সাথে সরকারিভাবেও এই নদীতে মাছ ছাড়া হয়। সম্প্রতি নদীতে এক শ্রেণীর অসাধূ মৎস্য শিকারীরা অর্ধশতাধিক স্থানে বাঁশ, চাটাই, পলিথিন ও জাল দিয়ে বাঁধ দিয়েছে। এতে করে পানি প্রবাহ বাঁধাগ্রস্থ হচ্ছে মারাত্মকভাবে। তাছাড়া একেবারেই ছোট দেশি ট্যাংরা, পুটি, শিং, পাকাল মাছ ও উড়োর জাল দিয়ে ধরা হচ্ছে রুই, কাতল, শৈল, গজাড় মাছ সহ অন্যান্য মাছ। গান্না, মাধবপুর, চান্দেরপোল, ফাজিলপুর, কালুখালী, সিনদহ আলাইপুর, শালিখাসহ বেশ কয়েকটি স্থানে মাছ ধরার জন্য এই বাঁধ দেয়া হয়েছে। সরজমিনে যেয়ে দেখা যায়, শিংগী বাজার মোস্তবাপুর ব্রিজের পূর্ব পাশে পরপর ৩ টি বাঁশের বাঁধ। প্রথম বাঁধটি দিয়েছেন, নিয়ামতপুর ইউনিয়নের ফারাসপুর গ্রামের মৃত বিলাত আলী বিশ্বাসের ছেলে, দাউদ হোসেন (৫৫)। দ্বিতীয় বাঁধ দিয়েছেন একই গ্রামের মৃত জহর আলী মন্ডলের ছেলে মোঃ বুল্লা মন্ডল (৪৫), আর তৃতীয় বাঁধটি দিয়েছেন, মোস্তবাপুর গ্রামের মৃত মনো মন্ডলের ছেলে হাসেম আলী মন্ডল (৫৫), গোমরাইল গ্রামের গোপাল ও সুবল মালো। এরা সবাই জানান, এসব প্রতিবারই আপনারা পত্রিকায় লেখেন কি হয়? মোবাইল কোর্ট এসে কিছু টাকা জরিমানা করে বাঁধ উঠিয়ে দিয়ে চলে গেলে আবারও ঐ স্থানে বাঁধ দেওয়া হয় আপনাদের কি লাভ হয়? বন্ধ করতে পেরেছেন নদীতে বাঁধ দেওয়া? পারবেন না। এটা যুগ যুগ ধরে আমাদের বাপ দাদারা এভাবে নদিতে বাঁধ দিয়ে মাছ ধরে আসছে। কালীগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাইদুর রহমান রেজা জানান, চিত্রা নদীতে অনেক স্থানে এভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করা হচ্ছে। নদীতে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করা অবৈধ ও আইনত অপরাধ। তিনি জানান, যারা বিভিন্ন স্থানে বাঁধ দিয়ে  ছোট ছোট মাছ শিকার করছে এদরকে মোবাইল কোট পরিচালনা করে বাঁধ উচ্ছেদ ও জরিমানা করা হবে। সেই সাথে বাঁধ দেয়ার বাঁশ, চাটাই, পলিথিন, জাল জব্দ করে নিলাম এবং জাল পুড়িয়ে ফেলা হবে। তিনি জানান, অবৈধ বাঁধগুলো অপসারণের জন্য নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে।
Facebook Comments


শিরোনাম
পোরশায় ভূল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু ঝিনাইদহে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক দুই মাসের অধিক সময় নিখোঁজ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে যায়যায়দিন পত্রিকার ১৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত রাঙ্গুনিয়ায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে একজন আহত নিয়ামতপুরে বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু নিয়ামতপুরে যায়যায়দিনের ১৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন জোনাল ম্যানেজার পদে ক্যারিয়ার গড়ুন নীলফামারী অঞ্চলে নিয়োগ দেবে দেশবন্ধু টেক্সটাইল মিলস দিশার ব্যাকফ্লিপে নেট দুনিয়ার চোখ কপালে! বলিউডের এই আবেদনময়ী এখন পেশাদার পোকার খেলোয়াড় রামগঞ্জে কৃষকের ধান ক্রয়ে অনিয়ম : সংবাদ প্রকাশের পর সেই সিন্ডিকেটের তালিকা বাতিল লক্ষ্মীপুরে ভুয়া ডাক্তারের কারাদণ্ড লক্ষ্মীপুর ঢাকা মহাসড়কে মেরামতের নামে চলছে তামাশা রামগঞ্জের নিখোঁজ শিশুকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল ওসি হরিণাকুণ্ডু উপজেলাতে ফিজিওথেরাপী চিকিত্সা সেবা ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুতে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বাঁধটি কার? নওগাঁয় ৪৪ টি পাখিসহ শিকারী আটক নওগাঁর সাপাহারে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু জিডি দায়েরের পরও সন্ত্রাসী হামলার শিকার নির্ভীক সম্পাদক একরামুল হক আসাদ নিয়ামতপুরে ছাত্রীদের সাথে অফিসার ইনচার্জের মতবিনিময় সিরাজগঞ্জ সলঙ্গাতে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিবাড়ি খেলা বিলুপ্ত প্রায় মহেশপুরে দেড় কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ইবি ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা সহপরিচালকের সঙ্গে ডুবে ডুবে জল খাচ্ছেন পরিণীতি?
© All rights reserved © 2017 Onnodristy.Com
Theme Download From ThemesBazar.Com