ফুটবল নগরী কুড়িগ্রাম সন্তর্পণে এগিয়ে যাচ্ছে…যাবে…

Reporter Name / ০ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০
৪০ দশকে কলকাতা প্রতিযোগিতায় তুখোড় ফুটবল খেলোয়াড় এসএম মনির হোসেন (সর্ববামে বসা)....

ফুটবল বিপ্লবী জালাল হোসেন লাইজুর নিজস্ব দর্শন…

অন্যদৃষ্টি…একটি বল একটি গ্রাম…

ক্রীড়া অনুসন্ধান রিপোর্ট ।।

অন্যদৃষ্টি অনলাইন নিউজ পোর্টাল……

অন‍্যদৃষ্টি অনলাইন পত্রিকা, পুরোনো সাথী এলিস দাদা বাবু। গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশন।

‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌একটি বল একটি গ্রাম একটি বল একটি দেশ, ফুটবল উন্নয়নে একটি পরিবার। ফুটবল নগরী কুড়িগ্রাম হচ্ছে….আম্রকানন যেখান থেকে প্রতিটি গ্রামে শুরু করবে….এলিস দাদা বাবুরা গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশনের অগ্রযাত্রা।

কয়েক স্তরে কাজ করছে গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশনের সহযাত্রীরা গোটা দেশে। ফুটবল বাঁচাতে সেলিম সাদ, আব্দুল মজিদ কাজল, খলিল রহমান, একেক জন একেক রকমভাবে কাজ করছে। গোপালগঞ্জে রকিবুল, শোয়েব স্মিথ, নোমী নোমান, এমন অনেকেই কাজ করছেন ভিন্ন ভিন্ন রুপে।

গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশনের জনক ও ফুটবল বিপ্লবী জালাল হোসেন লাইজুর স্যালুট….

পরোক্ষ-প্রত‍্যক্ষ ভাবে স্ব স্ব স্থানে থেকেও সকলে কাজ করছেন। তবে এই গ্রামীণ ফুটবলের জন‍্য গ্রামে গ্রামে কিশোর ম‍্যানেজমেন্ট গঠন করতে হবে! ফুটবলার হবে, হবে ব‍্যবস্হাপক। এলিসরা যখন গোটা বাংলাদেশের গ্রামগুলোর গ্রামীণ ফুটবল নিয়ে অন‍্যদৃষ্টিতে কাজ করছে….তখন‌ গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশন তাকে আরো বেশি আলিঙ্গন করবে।

দিন যাবে সার্থক হবে গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশনের পথ চলা। এলিসদের গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশন এগিয়ে যাবে…তবে সেজন্য ওদের এই ফেডারেশন নিয়ে কাজ করতে হবে তৃণমূল পর্যায়ে। অনলাইনগুলো উপস্থাপন করবে গ্রামীণ ফুটবলের প্রতিটি কার্যক্রম। তবেই দর্শন এগুবে, টাটকা দেশী ফুটবলের বিপ্লব ঘটবে।

সিয়াম থেকে রাব্বি…বেলালসহ হাজার হাজার তরুণ পাশে আছে, থাকবে!। দর্শণের পুরোটা এখনই প্রকাশ নয়…সময় বলে দেবে পরের অংশ।

হৃদয়ে লেখা গ্রামীণ ফুটবল……

গ্রামীণ ফেডারেশনই হবে ফুটবলের নতুন জীবনের অস্তিত্ব….

হৃদয়ে লেখা গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশনের অগ্রনায়কেরা সম্মতি জানাচ্ছেন এই ভাবের দর্শনকে। আমার বাবার শরীরের অবস্থার উন্নতি-অবনতির মতো মনটার অবস্থাও। কিন্তু বাবা আজ ইহজগতে নেই…

কিন্তু তবুও ঐ যে বাচ্চাদের অক্সিজেন….খন্দকার সালেক ভাই…এলিস দাদা বাবুসহ দেশের ভেতর-বাইরে থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বন্ধু….আমাদের দর্শনের একই তরনীর যাত্রীরা মিলে মিশে একাকার। যেনো গোটা বিশ্বের সুবিধা বঞ্চিতশিশুদের গ্রামগুলো এক একটি গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশন।

সকল দেশে রয়েছে সুবিধাবঞ্চিত শিশুকিশোর…গ্রাম আর রক্তে মেশা ফুটবল। তাহলে এ বিপ্লব শুধু ফুটবল নগরী কুড়িগ্রামের নয় গোটা দেশের…গোটা বিশ্বের। আস্তে আস্তে এ দর্শনের অগ্রনায়ক…যোদ্ধা একত্রিত হচ্ছে।

ফুটবল নগরী কুড়িগ্রামের নিজস্ব কুড়িগ্রাম ফুটবল প্রশিক্ষণ স্কুলের সকল শিক্ষার্থীদের প্রতি লাইজু’র স্যালুট…

এবার কন্ঠ ও কলমযোদ্ধাদের একত্রিত হতে হবে…তৈরি করতে হবে পরিবারের পর পরিবার। গড়তে হবে গ্রামীণ ফুটবল ফেডারেশনের সেতু। এলিস দাদা বাবুদের মতো এগিয়ে আসতে হবে দেশী ফুটবল ভালোবাসার যোদ্ধাদের। সফলতা আসছে, আসবে। বিপ্লব, সৎ বিপ্লব, সুবিধাবঞ্চিত শিশুকিশোর ফুটবলারদের উন্নয়নের বিপ্লবে পরাজয় নেই। ফুটবল বিপ্লবী।

ফুটবল বিপ্লবী জালাল হোসেন লাইজুর স‍্যালুট।

অন্যদৃষ্টি/এলিস হক

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email


More News Of This Category