নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
০২ মার্চ ২০২১, ১১:৪৬ অপরাহ্ন

৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নিতে ৩৯ পৃষ্ঠার নির্দেশনা

অন্যদৃষ্টি ডেস্ক
শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১, ১:৫০ পূর্বাহ্ন

আগামী ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুনরায় খোলার বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে ও স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। 

শুক্রবার রাতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) এ নির্দেশনা দিয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, কোভিড ১৯ পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থী-শিক্ষক, কর্মচারীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়াও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, নিরাপদ ও  আনন্দময় পরিবেশ সৃষ্টি করতে কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা গ্রহণের তাগিদ দেওয়া হয়।

পুনরায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইডলাইন প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। এ গাইড লাইন অনুসারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে৷ পুনরায়া খোলার বাজেট তৈরিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব তহবিল ব্যবহার করার কথা বলা হয়েছে।

এ গাইড লাইন মেনে ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। একই সাথে,  উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আদেশ পাওয়া মাত্র শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইডলাইনে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সর্বোচ্চ প্রাধান্য পেয়েছে। তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চগুলোকে স্থাপন করতে বলা হয়েছে। পাঁচ ফুটের কম দৈর্ঘ্যের একজন শিক্ষার্থী এবং ৫ থেকে ৭ ফুট দৈর্ঘ্যের বেঞ্চে দুইজন শিক্ষার্থী স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাইডলাইন অনুসারে ক্লাস করতে পারবে। স্কুলে ঢোকার আগেই থার্মোমিটার দিয়ে তাপমাত্রা পরীক্ষা করার কথাও বলা হয়েছে।

৩৯ পাতার গাইড লাইনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মধ্যে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল বৈঠকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে আলোচা হয়। সে অনুযায়ী দু-এক দিনের মধ্যে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গাইডলাইন পাঠানোর কথা ছিল।

জানা গেছে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে প্রতি বেঞ্চে একজন করে শিক্ষার্থী বসতে পারবে। পুরো ক্লাসরুমে থাকবে সর্বোচ্চ ১৫ জন ছাত্রছাত্রী। প্রাথমিকভাবে চতুর্থ ও পঞ্চম এবং দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে যেতে পারবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলতে সব কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও স্কুলকে নির্দেশনা দেওয়া হবে।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো সংবাদ