নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৩৮ অপরাহ্ন

মুন্সিগঞ্জের কুকুটিয়া কে কে ইনস্টিটিউশনে মা সমাবেশে শিক্ষার মান উন্নয়নে অঙ্গীকার

অন্যদৃষ্টি ডেস্ক
বুধবার, ২৬ জুন, ২০১৯, ৯:৪৫ অপরাহ্ন
মুন্সিগঞ্জ কুকুটিয়া কে, কে, ইনস্টিটিউশনে মা সমাবেশ। ছবি : প্রতিবেদক

বিশেষ প্রতিবেদক।। 

মা সমাবেশের লক্ষ ও উদ্দেশ্য শিক্ষক ও মায়েদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় শিক্ষার মান উন্নয়ন করা এবং শিক্ষার্থীর মানবিক গুণাবলী অর্জনে সহযোগিতা করা।

মা দিবস শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ দিবসের মাধ্যমে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অবিভাবকের মধ্যে পরস্পর মতবিনিময় এবং শিক্ষার মান উন্নয়নে  বিভিন্ন শিক্ষার্থীদের পাঠদানের প্রতি মনোযোগ বাড়ানোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়।

মা তার সন্তানের প্রতিপালন থেকে শুরু করে জীবন গঠনের প্রাথমিক পর্যায় পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। মায়ের সান্নিধ্যেই একজন সন্তান বেশির ভাগ সময় ব্যয় করে থাকেন।

শিক্ষা ব্যবস্থায় সন্তানকে মানুষ করার ক্ষেত্রে ও মায়ের ভূমিকা অপরিসীম ।

মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী স্কুল কুকুটিয়া কে, কে, ইনস্টিটিউশন। স্থাপিত হয় ১৯০৪ সালে।

বিদ্যালয়টিতে প্রতি বছরই ন্যায় এবছর ও মা সমাবেশ পালন করা হয়। মা সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষক বাবু বিমলানন্দ বসু।

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত  ছিলেন জনাব মজিবুর রহমান, সহ প্রধান শিক্ষক ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (নজরুল) মুন্সিগঞ্জ জেলার সহ সভাপতি ।

জনাব আব্দুল হালিম খানের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (নজরুল) এর মুন্সিগঞ্জ জেলার মহিলা সম্পাদিকা শিল্পী আক্তার, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি( নজরুল) এর কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব জনাব মোঃ আবুল হোসেন প্রমুখ। আরও উপস্থিত ছিলেন ম্যানেজিং কমিটির সদস্য বৃন্দ।

মা সমাবেশে সকল  শিক্ষার্থীদেরকে শিক্ষার মান উন্নয়নে সঠিকভাবে তদারকি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় । যাতে কেউ লেখা পড়ায় ফাঁকি দিতে না পারে সে দিকে বিশেষ নজর দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন প্রতিটি মা।

কথায় আছে শিক্ষিত জাতি গঠনে মায়ের ভূমিকা অপরিসীম। শিক্ষিত মা ব্যবতীত শিক্ষিত জাতি গঠন সম্ভব নয়। মায়েদের তাই আরও সচেতন হওয়া উচিত।

মা সমাবেশে মায়ের সে দায়িত্বশীল মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। প্রতিটি মা তাদের সন্তানদের সঠিকভাবে পরিচালিত করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন। মায়েররা সচেতন হলে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের রেজাল্ট সন্তোষজনক হতে বাধ্য।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো সংবাদ