নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৪৮ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীর গোদাগাড়ী পিরিজপুরে বিরোধী কথা বলাই গনধোলাই

অন্যদৃষ্টি ডেস্ক
সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন

একেএম বাবু, রাজশাহী।।
রাজশাহীর গোদাগাড়ী মাটিকাটা ইউনিয়ন পিরিজপুর বাজার সংলগ্ন এলাকাতে দলীয় হায় কমান্ড অবঙ্গা করে বর্তমান অাওয়ামী সরকারের এমপির নামে বিরোধী উলট পালট কথা বলায় এবং বহিরাগতদের সাথে নিয়ে শোডাউন করার কারনে স্থানীয় অাওয়ামী লীগের শুভাকাঙ্ক্ষী জনগনেরা উশৃঙ্খল ভাড়াটে করা সরকার বিরোধী কুচক্রদের গনধোলাই দেওয়ার কথা জানা গেছে।
এদিকে ঘটনাটি ঘটেছে গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের পিরিজপুর বাজারে।তাছাড়া গত ১৬ সেপ্টেম্বর রবিবার সারাদিন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিএনপি নেতাদের সাথে তানোর উপজেলা অাওয়ামী লীগের সভাপতি, মুন্ডুমালা পৌরসভার মেয়র গোলাম রাব্বানীর ছবি ভাইরাল হয়েছে।
সে ছবি পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে উপজেলা বিএনপির সভাপতি, মরহুম এমরান অালীর জানাযার সময়ের ছবি,  তার পার্শে ছিলেন, (সাবেক) ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী অামিনুল হক এবং রাজশাহী সিটির (সাবেক) মেয়র মিজানুর রহমান মিনুর সাথে দাঁড়িয়ে অাছেন। অার এসবের কারনে অাওয়ামী লীগের ভোটারদের মাঝে এখন প্রচুর ক্ষোভ বিরাজ করছে? তাছাড়া সাধারন জনগনদের মনে বারবার প্রশ্ন জাগছে গোলাম রাব্বানীর অাসল উদ্দেশ্য কি? তিনি কি বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার জন্য মাঠে নেমে এসব করছে? তিনি কি শেখ হাসিনার অাস্থাভাজন ব্যক্তি রাজশাহী১ (তানোর-গোদাগাড়ীর) বর্তমান (এমপি) জেলা অাওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি, অালহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর সাজানো গোছানো মাঠ নষ্ট করছে। জনগন তাদের কার্যক্রম দেখে অনেকে মতামত দিয়েছেন, তিনি কি নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ফেল করানো জন্য মাঠে নেমেছেন?তানোর গোদাগাড়ী অাসনের অাওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা দাবী করছেন গোলাম রাব্বানীর সাথে কেন স্থানীয় নেতা কর্মীরা শোডাউনের সময়ে সাথে থাকছেন না। কিন্তুু হঠাৎ করে কোথা থেকে গাড়ি বহরে বহিরাগতদের নিয়ে অত্র জেলার অাওয়ামী পরিবারের সফল সংগঠক (এমপি) ওমর ফারুকের নামে বিভিন্ন কথা বার্তা বলার কারনে অা,লীগের শুভাকাঙ্ক্ষী জনগন তাদেরকে গনধোলাই দিয়ে এবং সেখান থেকে তাদেরকে বের করে দেয়ার খবর পাওয়া গেছে।
অপরদিকে, অনেকে বলছে মুন্ডুমালা পৌরসভাকে দু বার দায়িত্বে থেকে উন্নয়ন করে দেখাতে পারে নাই যদি পারতো তাহলে হতো? কিন্তুু তা তিনি করতে পারে নাই? দু বার তাকে উপজেলা চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী করার পরও কিছু করতে পারে নাই তাহলে কি করে তানোর গোদাগাড়ীর এমপি প্রার্থী হওয়ার অাশা করেন এসব কথা তানোর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়নাকে বিভিন্ন সভা গুলোতে বক্তব্য দিতে দেখা গেছে।
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো সংবাদ