নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
০১ অক্টোবর ২০২০, ০৬:২৬ অপরাহ্ন

প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে ঝিনাইদহের মধুহাটিতে আলোচিত সেই টিউবওয়েলের পানি ব্যবসা

অন্যদৃষ্টি ডেস্ক
শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০১৯, ১০:২৬ অপরাহ্ন
ঝিনাইদহের আলোচিত টিউবয়েল থেকে পানি উত্তোলন

সাইফুল ইসলাম।।

কুসংস্কার একটি কাল্পনিক রোগ। অন্ধ বিশ্বাস। আর এই অন্ধ বিশ্বাসকেই কুসংস্কার বা কাল্পনিক রোগ বলে। সুতরাং কাল্পনিক রোগের ধারাবাহিকতায় চলছে মধুহাটি ইউনিয়নের সেই বিশাল আলোচিত টিউবওয়েলের পানি ও মাটি গল্প।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়নের বাজার গোপালপুর গ্রামে অভিযোগ উঠেছে নীরবতা ভেঙ্গে মধ্যরাতে অচেনা নারী পুরুষের ভীড়।উৎসুক গ্রামবাসি তন্দ্রাচ্ছন্ন চোখে ঘর থেকে বেরিয়ে দেখেন আবার সেই আলোচিত পানির কল থেকে পানি সংগ্রহ শুরু হয়েছে। কে বা কাহারা মাঠের স্যালো মেশিন থেকে টিউবওয়েলের মাথা খুলে এনে সেখানে লাগিয়ে দিয়েছে। ব্যাস!

ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ টিউবওয়েলটি অপসারণের নির্দেশ দেন। ঝিনাইদহ সদরের ইউএনও শাম্মি ইসলাম ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেন ঘটনাটি স্রেফ গুজব। এই পানি পান করে কারো রোগ ভাল হয়েছে এমন কাউকে পাননি। দেখা গেছে প্রথম দিন পানি নিয়ে দ্বিতীয় দিন আর কেও আসেনি। যারা আসছে তারা গুজবে কান দিয়ে আসছে। ইউএনও সরেজমিন দেখে আসার পর গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বাজার গোপালপুর পুলিশ ফাড়ির এস,আই মোঃ দেলোয়ার হোসেন পানির কলটি খুলে নিয়ে যান। হুজুগে বাঙ্গালী কলের পানি না পেয়ে কলের গোড়ায় পানি ঢেলে সেই কাদা মাটি মেখে বাড়ি ফিরছিল।

অবশেষে শুক্রবার মধ্যরাতে প্রশাসনের নজরদারী ও বিধিনিষেধ অমান্য করে আবারো সেখানে কলের মাথা বসিয়ে পানি নিতে শুরু করেছে মানুষ। তবে রাতের বেলা মেয়েদের চেয়ে পুরুষ মানুষের সংখ্যা বেশি দেখা গেছে।

তাই কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার আগেই আলোচিত এই টিউবওয়েলের শেকড় উপড়ে ফেলতে হবে। আর এই কলের পেছনে যারা গুজব ছড়িয়ে কলকাঠি নাড়ছে, ফায়দা লুটছে তাদেরও আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন এলাকার শিক্ষিত ও সুশীল সমাজ।

জেলা প্রশাসকের নেক দৃষ্টি কামনার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন তারা

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো সংবাদ