নোটিশ :
সংবাদকর্মী নিচ্ছে অন্যদৃষ্টি। আগ্রহীগন সিভি পাঠান- 0nnodrisrtynews@gmail.com
২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৩:২৮ অপরাহ্ন

হরিণাকুন্ডুর তাহেরহুদাতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা

শরিফ আহম্মেদ চাঁদ
বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০, ৯:১৯ অপরাহ্ন
হরিণাকুন্ডুর তাহেরহুদাতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা

ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলার ৩নং তাহেরহুদা ইউনিয়নের নারায়ন কান্দি গ্রামে স্কুল মাঠে হয়ে গেল গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য লাঠি খেলা। খেলা দেখতে বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত নারী-পুরুষ, বৃদ্ধ-শিশু ভিড় জমান সেখানে। খেলার মাঠ পরিণত হয় এলাকার মানুষের মিলন মেলায়।

বাংলার হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য ধরে রাখতে নারায়ন কান্দি গ্রামের মোঃ ভোলা মন্ডল এর নেতৃতে এই লাঠি খেলার আয়োজন করা হয়।আর মানুষকে বিনোদন দিতেই এ আয়োজন বলে জানান আয়োজকরা।

আর প্রতিবছর এ ধরনের আয়োজন করার দাবি দর্শকদের।বাজছে ঢাক,ঢোল আর কাসার ঘন্টা। তালে তালে উৎসুক জনগণের আনন্দ দিতে চলে নৃত্য।

এর পরই শুরু হয় লাঠির কসরত। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাত থেকে রক্ষা আর প্রতিপক্ষকে কাবু করার জন্য মেতে ওঠেন লাঠিয়ালরা। আর এই নির্মল আনন্দ উপভোগ করেন শত শত দর্শক। হাততালিকে মুখরিত হয়ে ওঠে খেলার স্থান। গ্রামবাসীর আয়োজনে এমনই এক আসর বসেছিল হরিনাকুন্ডু উপজেলার ৩নং তাহেরহুদা ইউনিয়নের নারায়ন কান্দি গ্রামের স্কুল মাঠে।

যা উপভোগ করতে নারায়ন কান্দী গ্রামের লোকজন সহ আশপাশের এলাকা থেকে ছুটে আসে শত শত মানুষ। বর্তমান যুব সমাজকে অপরাধের হাত থেকে দুরে রাখতে আর গ্রামীন ঐতিহ্য তাদের সামনে তুলে ধরতে এ ধরনের আয়োজন প্রতিনিয়ত চান দর্শকরা।

খেলার আয়োজক ভোলা মন্ডল বলেন হারানো ঐতিহ্য বর্তমান প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে এ আয়োজন করা হয়েছে। খেলোয়াড়রা বলেন, মানুষকে খেলা দেখিয়ে আনন্দ পান তাই গ্রাম-গ্রামান্তরে ছুটে আসেন খেলা দেখাতে। সর্বশেষ ভোলা মন্ডল দাঁত দিয়ে ঢেকি ঘুরিয়ে খেলা সমাপ্ত করেন।

উল্লেখ্য দিনভর এ খেলায় অংশ নেয় কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ জেলার লাঠিয়াল দল।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো সংবাদ